ইউরোপে চাকরি খুঁজে পাওয়ার গোপন রহস্য | ইউরোপাস সিভি কিভাবে তৈরি করব |

ইউরোপে চাকরি খুঁজে পাওয়ার গোপন রহস্য |

ইউরোপে চাকরি খুঁজে পাওয়ার গোপন রহস্য

ইউরোপে চাকরি পাওয়ার প্রথম এবং প্রধান উপাদান সিভি। আজকের আমাদের এই আর্টিকেলে আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করব ইউরোপে চাকরি খুঁজে পাওয়ার গোপন রহস্য। এবং তার সাথে সাথে আলোচনা করব ইউরোপাস সিভি কিভাবে তৈরি করবেন। আর আমরা সকলেই ইতিমধ্যে জেনে গেছি যে সিভি আমাদের চাকরি পাওয়ার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন। চলুন উল্লেখিত বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

ইউরোপাস সিভি কিভাবে তৈরি করব

আমরা অনেকেই ইউরোপে জব করার জন্য যেতে চাই। তবে আমাদের জব খোঁজার জন্য আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন পড়ে সিভি। সিভিতে যতরকম আপনার দক্ষতা দেখাতে পারবেন আপনার তত বেশি চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে। আপনারা যদি ইউরোপের জন্য মানসম্মত সিভি তৈরি করা শিখতে চান তবে আজকের আমাদের এই আর্টিকেল আপনার জন্য

ইউরোপাস সিভি তৈরি করার নিয়ম

ইউরোপাস সিভি তৈরি করতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে। গুগলে গিয়ে ইউরোপা সিভি লিখে সার্চ করলে আপনি তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি পেয়ে যাবেন। আপনারা চাইলে এখান থেকেও অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এই লিংক এর মাধ্যমে প্রবেশ করতে পারেন।
ইউরোপাস সিভি লিংকঃEuropass
এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর আপনাদের যেভাবে সেভিটি তৈরি করতে হবে তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  1. এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে আপনাদেরকে সর্বপ্রথম লগইন বা রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে।
  2. তারপরে আপনারা বেশ কিছু অপশন দেখতে পারবেন। তার মধ্য থেকে ডান পাশে ক্রিয়েট নিউ সিভি লেখা থাকবে সেখানে ক্লিক করবেন।
  3. ক্লিক করার পরে আপনার কাছে আরেকটি ইন্টারফেস আসবে। সেখানে আপনারা বাম পাশে ভাষা সিলেক্ট করবেন। এবং তার নিচে তারিখ দেওয়ার অপশন দেখতে পারবেন সেখানে তারিখ এবং সাল বসাবেন।
  4. তারপরে আপনারা আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশন দেবেন। প্রথমে ফার্স্ট নেম তারপরে লাস্ট নেম।
  5. তারপরে আপনারা এবাউট মি অপশনে আপনাদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য উল্লেখ করবেন।
  6. তারপরে আপনাদের জন্মসাল, জেন্ডার এগুলা সিলেক্ট করবেন।
  7. তারপরে ন্যাশনালিটি, তারপরে ইমেইল এড্রেস, ফোন নাম্বার, তারপরে আপনারা সোশ্যাল মিডিয়া চাইলে এড করতে পারেন।
  8. আপনার যদি ওয়েবসাইট থাকে তবে আপনি ওয়েবসাইট দিতে পারেন।
  9. তারপরে অ্যাড্রেস অপশনে আপনার পাসপোর্ট অনুযায়ী আর আপনার সার্টিফিকেট অনুযায়ী সকল তথ্যগুলো বসাবেন।
  10. তারপরে আপনাদের ছবির প্রয়োজন হবে সেখানে ছবিটি বসাবেন।
  11. তারপরে আপনারা আপনাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা গুলো দেওয়ার জন্য অপশন আসবে সেখানে আপনাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা গুলো দেবেন।
  12. তারপরে আপনার কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে সেগুলো প্রকাশ করবেন। কেমন ধরনের কাজ করেছেন, কতদিন কাজ করেছেন এগুলো সব উল্লেখ করতে হবে।
  13. তারপরে মাদার টাঙ্গি লেখা দেখতে পারবেন সেখানে আপনারা বাঙালি লিখবেন।
  14. অতঃপর নিচে আদার ল্যাঙ্গুয়েজ আপনারা চাইলে ইংলিশ যুক্ত করতে পারেন।
  15. তারপরে আপনাদের ইংলিশে দক্ষতা কেমন তা জানার জন্য কয়েকটা অপশন আসবে সেখানে আপনারা আপনার দক্ষতা পূরণ করবেন।
  16. তারপরে নিচে এড এনাদার ল্যাঙ্গুয়েজ থাকবে, সেখানে আপনারা অন্যান্য ভাষা ও যোগ করতে পারেন।
  17. তারপরে আপনারা এখান থেকে আপনাদের টেমপ্লেটও চেঞ্জ করতে পারেন। আর আপনার সিভির স্টাইল চেঞ্জ করতে পারেন।
  18. তারপরে আপনারা নেক্সট অপশনে ক্লিক করবেন।
  19. তারপরে আপনারা দেখতে পারবেন যে আপনার সামনে সিভিটি রেডি হয়ে গেছে। তারপর আপনারা আপনার সিভিটি সেভ করে নেবেন। আপনাদের সেভিং কমপ্লিট।
এভাবে আপনারা খুব সহজেই যে কোন সিভি তৈরি করতে পারেন।
ইউরোপাস সিভি কিভাবে তৈরি করব

ইউরোপাস সিভি তৈরির পূর্বে গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথা

আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে আমরা বলতে পারি আমাদের সিভিতে কোন ভুলগুলো থাকে এবং কোন ভুল গুলোর কারণে আমরা জব সহজে পাই না। আর সিভিটা কিভাবে তৈরি করলে আমাদের জব পাবার সম্ভাবনা বেশি থাকে। এই সকল বিষয়গুলো আজকে আলোচনা করব।
আপনারা অনেকেই আছেন যারা ইউরোপে যাওয়ার জন্য সিভি তৈরি করেছেন। আবার অনেকেই ইতিমধ্যে ইউরোপে আছেন। কিন্তু জব পাবার জন্য আপনার কাছে মানসম্মত সিভি নেই। বা অনেকেই সিভি তৈরি করতে পারেন না। আবার অনেকেই দেখা যায় যারা সিভি তৈরি করতে পারেনা যে কারণে বিভিন্ন কম্পিউটারের দোকান থেকে সিভি তৈরি করে নেন।
ইউরোপের জব পাওয়ার জন্য আপনার সিভি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আপনি যে কোন কোম্পানিতে আবেদন করতে হলে আপনার সিভির প্রয়োজন হবে। আর শুধুমাত্র সিভি সুন্দরভাবে করলে আপনার জব হবে না জব হওয়ার জন্য আপনার অভিজ্ঞতা. অধ্যবসন, বুদ্ধিমত্তা ইত্যাদির প্রয়োজন হবে।
তবে আপনাদের জেনে রাখা ভালো যে একজন কর্মীকে তারা সিভি দেখে প্রথমে নির্বাচন করেন। সিভি আপনার যত ভালো হবে আপনি ইন্টারভিউ দেওয়ার সুযোগ পাবেন। আর আপনার যদি সিভি খারাপ হয় তবে আপনি ইন্টারভিউ পর্যন্ত ও সুযোগ পাবেন না। সে ক্ষেত্রে আপনার চাকরি পাওয়ার কোন সম্ভাবনাই নেই।
আরো জানতে ভিজিট করুন

Leave a Comment