ইতালি পর্যটন ভিসা | ইতালি কিভাবে যাবো | ইতালি টুরিস্ট ভিসা খরচ কত |

ইতালি পর্যটন ভিসা | ইতালি কিভাবে যাবো | ইতালি টুরিস্ট ভিসা খরচ কত |
আসসালামু আলাইকুম আশাকরি সকলে ভালো আছে। আজকে আমরা আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করব ইতালি পর্যটন ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। আপনাদের মনের সকল রকম প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। আশা করি আপনারা সকলে উপকৃত হবেন। চলুন জেনে নেই ইতালি পর্যটন ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

ইতালি পর্যটন ভিসা

আপনারা অনেকেই রয়েছেন যারা ইতালিতে পর্যটন ভিসা নিয়ে যেতে চান। আপনারা ইতালি পর্যটন ভিসা সম্পর্কে অনেকেই জানতে আগ্রহী। চলুন জেনে নেই ইতালি পর্যটন ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত। যেমন, ইতালি কিভাবে যাবেন।

ইতালি ভিসা প্রক্রিয়া। ইতালি যেতে কত টাকা লাগে। ইতালি যেতে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন। ইতালির দশটি দর্শনীয় স্থান। ইতালির কোন কোন জায়গায় ভ্রমণ করা যায় সে সম্পর্কে ইত্যাদি। আশা করি আপনারা সকলেই সামান্য পরিমাণ হলেও উপকৃত হবেন ইনশাআল্লাহ।

ইতালি টুরিস্ট ভিসা খরচ কত

ইতালি ভিসা প্রসেসিং খরচ কত

আপনি যদি একা যান তাহলে আপনার খরচ হবে ৭ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকার মতো। অর্থাৎ ৮০ ইউরোর মত। ছয় বছরের নিচে বাচ্চাদের বয়স হলে তাদের ভিসা ফি লাগবে না। ৬ বছর থেকে ১২ বছর পর্যন্ত বয়স হলে তাদের ভিসা ফিস লাগবে প্রায় ৪৫ ইউরোর মত।
আপনারা যারা ইতালিতে টুরিস্ট ভিসা নিয়ে যেতে চান। তাদের জানার প্রয়োজন যে ইতালিতে ভিসা খরচ বা ভিসা প্রসেসিং কত হয়। তা না হলে আপনার কাছ থেকে আপনি যার মাধ্যমে যাবেন সে বা তারা বেশি অর্থ দাবি করতে পারে। আপনি যদি না জানেন তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন না যে আপনার কাছ থেকে তারা কত টাকা বেশি নিচ্ছে। আর যে কোন দেশে যাওয়ার পূর্বে আমাদের সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।

ইতালি কিভাবে যাবো

ইতালিতে বেশ কয়েক রকম ক্যাটাগরির ভিসা নিয়ে যাওয়া সম্ভব। ইতালিতে আপনি স্টুডেন্ট ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন। বিজনেস ভিসা নিয়ে যেতে পারবে। কাজের ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন। টুরিস্ট ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন। মূলত আজকে আমরা যেহেতু ইতালি টুরিস্ট ভিসা নিয়ে আলোচনা করছে সুতরাং টুরিস্ট ভিসা নয়েই কথা বলবো।
ইতালিতে আপনার কোনো আত্মীয়ের মাধ্যমে যেতে পারেন যদি সে আত্মীয় ইতালিতে থাকে। অথবা আপনি দালাল অথবা এজেন্সির মাধ্যমে যেতে পারেন। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন ইতালি কিভাবে যাযবেন সে সম্পর্কে।

ইতালির দর্শনীয় স্থান গুলোর নাম কি

আপনারা যারা ইতালিতে টুরিস্ট ভিসা নিয়ে যাবেন তারা অবশ্যই ঘোরার উদ্দেশ্য নিয়ে যাবেন। সেখানে গিয়ে আপনারা কোন কোন স্থান পরিদর্শন করবেন তা পূর্ব থেকে পরিকল্পনা করে রাখলে ভালো হয়। সেখানে গিয়ে কোনরকম প্যারা ছাড়াই বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করতে পারবেন।
বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানগুলোর নাম সম্পর্কে আপনারা অনেকেই জানতে চান। যেন সেখানে গিয়ে আপনারা সেই সকল স্থানগুলো খুব ভালোভাবে পরিদর্শন করতে পারেন। বিভিন্ন জায়গাগুলো যেন আপনাকে খুঁজতে না হয়। চলুন জেনে আসি ইতালির দর্শনীয় কিছু স্থানের নাম।
  • ভেনিস
  • রোম
  • ফ্লোরেন্স
  • তুস্কানি
  • মিলান
  • ভেরোনা
  • আমালফি
  • পিসার হেলানো টাওয়ার
  • কলোসিয়াম
  • ইউফিজি গ্যালারি

আরো অনেক স্থানে রয়েছে ইতালিতে ঘোরার মত। আপনারা যারা একা রেখে যেতে চান তারা এই সকল জায়গাগুলো ঘুরে দেখতে পারেন।

ইতালির দর্শনীয় ১০ টি স্থান

আপনারা যারা ইতালিতে যেতে চান টুরিস্ট ভিসা নিয়ে তারা মূলত ঘোরার জন্য যেতে চান। আমরা আপনাদের সঙ্গে ইতালির দর্শনীয় স্থান এর নাম নিচে দিলাম। আশা করি আপনারা এই সকল জায়গাগুলো ঘুরে অনেক আনন্দ অনুভব করবেন।

  1. ভেনিস
  2. রোম
  3. ফ্লোরেন্স
  4. তুস্কানি
  5. মিলান
  6. ভেরোনা
  7. আমালফি
  8. পিসার হেলানো টাওয়ার
  9. কলোসিয়াম
  10. ইউফিজি গ্যালারি

আরো অনেক জায়গায় রয়েছে ইতালিতে ঘোরার মত। আপনারা বুঝতে পেরেছেন ইতালির ১০ টি দর্শনীয় স্থান এর নাম সম্পর্কে।

ইতালি পর্যটন ভিসা পেতে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন

ইতালি পর্যটন ভিসা পেতে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন এটা অনেকেই জানতে আগ্রহী। চলুন জেনে নিই ইতালি পর্যটন ভিসা পেতে কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন হয় সে সম্পর্কে।

  • প্রথমত আপনার একটি পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হবে।
  • আপনার এনআইডি কার্ডের প্রয়োজন হবে।
  • আপনি যদি ছাত্র হয়ে থাকেন তাহলে আপনার কলেজ কার্ড এর প্রয়োজন হবে।
  • আপনি যদি বিজনেসম্যান হয়ে থাকেন তাহলে আপনার বিজনেস কার্ড এর প্রয়োজন হবে।
  • আপনার সদ্য তোলা ছবির প্রয়োজন হবে।
  • ব্যাংক স্টেটমেন্ট এর প্রয়োজন হবে।
  • করোনা টিকা কার্ড এর প্রয়োজন হবে।
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এর প্রয়োজন হবে।

মূলত এই সকল ডকুমেন্ট প্রয়োজন হবে ইতালি পর্যটন ভিসা নিয়ে যেতে চাইলে। অন্যান্য কোন ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন হলে তারা আপনাকে জানিয়ে দেবে।

ইতালি গিয়ে কোন কোন জায়গায় ভ্রমণ করব

আপনারা যারা ইতালিতে ভ্রমণ করতে যেতে চান তারা জানতে চান ইতালি গিয়ে কোন কোন জায়গায় ভ্রমণ করবেন সে সম্পর্কে। আমরা ইতিমধ্যেই আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করেছে বেশ কয়েকটি দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে। চলুন সেই সকল স্থানগুলোর সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানা যাক

ভেনিস

ভেনিস একটি শহর। ভেনিস শহরের মতো কয়েকটি দ্বীপের সমষ্টি এটা হয়তো আপনারা সকলেই জানেন। পুরো ভেনিস জুড়ে রয়েছে অসংখ্য খাল। শহরটি কোন খন্ডিত করেছে গ্র্যান্ড ক্যানেল এবং দুই পাশ কে সংযুক্ত করেছে চমৎকার সেতুগুলো। ভেনিস সবচেয়ে সুন্দর জমকালো সেতু হিসেবে খ্যাতি পেয়েছে একটি সেতু। ভেঙেছে ভ্রমণ করার মতই এইসকল জায়গাগুলো।

ফ্লোরেন্স

আপনারা অনেকেই অবগত রয়েছেন যে ফ্লোরেন্স নগরীর থেকেই ইতালির নবজাগরণ শুরু হয়েছিল। এই শহরটি বিখ্যাত অনেক অভিজাত ভবন থাকার কারণে। এখান থেকে সবুজের দৃশ্য খুব সুন্দর ভাবে দেখা যায়। তাই এখানে ভ্রমণকারীরা যেতে অনেক আনন্দ উপভোগ করেন।

রোম

আমরা সকলেই জানি ইতালির রাজধানী রোম এবং এটি সবচেয়ে বড় শহর। এটি ইউরোপের সবচেয়ে পুরনো একটি শহর। এই শহরে রয়েছে অনেক মিউজিয়াম। যেগুলো ভ্রমণকারীদের দৃষ্টি কাড়ে। আপনারা যারা ভ্রমণ করতে যাবেন তারা রোমে যেতে পারেন।

তুস্কানি

তুস্কানি শহরটি ছবির মতো সুন্দর। এই শহরটি ভ্রমণকারীদের মুগ্ধ করে দেয়। শহরটি অনেক বৈচিত্র্যময়। যারা ভ্রমণ করতে বেশি পছন্দ করেন তারা প্রায় সকলেই এই শহরটি ভ্রমণ করে থাকেন। ভ্রমণকারী দেন আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে তুস্কানি শহরটি।

মিলান

মিলান শহরে ভ্রমণকারীদের জন্য অনেক জনপ্রিয় একটি শহর। ফ্লোরেন্স, ভেনিস থেকে এই শহরে আসার খুব সুন্দর ব্যবস্থা রয়েছে। এই শহরটি ব্যবসা-বাণিজ্যের কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত।

আরো অনেক শহর রয়েছে যেগুলো সম্পর্কে আমরা অন্যদিন বিস্তারিত আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন ইতালিতে ভ্রমণ করার মত সুন্দর শহর গুলো সম্পর্কে।

ইতালি গিয়ে কোথায় থাকবো

আপনারা যারা ইতালিতে যেতে চান তারা জানতে চান ইতালি নিয়ে কোথায় থাকবেন সে সম্পর্ক। ইতালি গিয়ে আপনাদের কোন আত্মীয় ইতালিতে থাকলে তাদের কাছে থাকতে পারেন। অথবা আপনি সেখানে হোটেল ভাড়া করে থাকতে পারেন। ইতালিতে যেহেতু পর্যটন এর জন্য অনেক মানুষ এসে থাকেন সুতরাং সেখানে হোটেল পাওয়াটা কঠিন কোনো বিষয় নয়। আপনারা খুব সহজেই সেখানে থাকার ব্যবস্থা করে দিতে পারবেন।

ইতালি গিয়ে কেনাকাটা করার উপায়

আপনারা অনেকেই ভ্রমণ করতে পছন্দ করেন। ভ্রমণের সঙ্গে কেনাকাটার সম্পর্ক অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কেননা ঘোড়ার সঙ্গে কেনাকাটার প্রসঙ্গ টা এমনি এমনি চলে আসে। আপনারা যারা ইতালিতে ঘুরতে যাবেন বলে ভাবছেন তারা জানতে চান এ সম্পর্কে।

আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না ইতালির প্রতিটি শহরে শপিংমল রয়েছে। সে সকল জায়গা থেকে আপনারা ঘুরে ঘুরে আপনাদের পছন্দমত পণ্য সামগ্রী কিনতে পারবেন। ইতালিতে শপিং করলে খরচটা অনেকটাই বেশি হয়ে থাকে। ইতালিতে সবচেয়ে বেশি পছন্দের বিষয়গুলো সেখানকার বাঁধায় করা চিত্রকর্ম।

ইতালিতে বাংলাদেশি পর্যটকরা কিভাবে যাবেন

আপনারা যারা বাংলাদেশ থেকে ইতালিতে যেতে চান তারা অনেক সময় জানতে চান বাংলাদেশি পর্যটকরা কিভাবে যাবেন সে সম্পর্কে। আপনারা বিভিন্নভাবে ইতালিতে যেতে পারবেন যা আমরা ওপরে আলোচনা করেছি ঠিকই মাধ্যম দিয়ে আপনারা ইতালিতে পৌছাতে পারবেন সে সম্পর্কে।

দালালের মাধ্যমে অথবা এজেন্সির মাধ্যমে অথবা ইতালিতে আপনার কোন আত্মীয় রয়েছে তাদের সুপারিশ এর মাধ্যমে আপনি ইতালিতে পৌঁছাতে পারবেন।

Leave a Comment