ডেনমার্ক ভিসা প্রসেস | ডেনমার্ক কাজের ভিসা | ডেনমার্ক যেতে কোন কোন ডকুমেন্টস প্রয়োজন |

ডেনমার্ক ভিসা প্রসেস | ডেনমার্ক কাজের ভিসা | ডেনমার্ক যেতে কোন কোন ডকুমেন্টস প্রয়োজন |


যারা ডেনমার্ক ভিসা সম্পর্কে জানার আগ্রহ থেকে আমাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করেছেন তাদেরকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও সালাম আসসালামু আলাইকুম। পৃথিবীতে যে দেশগুলো বর্তমানে সবচেয়ে বেশি শান্তিপূর্ণ রূপ ধারণ করে আছে, যে দেশগুলোতে সবথেকে অপরাধ কম সংঘটিত হয় সে দেশগুলোর তালিকার মধ্যে রয়েছে ডেনমার্ক।

এবং ডেনমার্ক ভিসা পাওয়ার জন্য কিছু কঠিন অতিক্রম করতে হয়। আসুন আমরা সে সকল প্রসেস সম্পর্কে জানার চেষ্টা করি।

ডেনমার্ক ভিসা প্রসেস

আসসালামু আলাইকুম,প্রিয় পাঠক আশা করি ভাল আছেন। আমরা আজকে ইউরোপের সেনজেন ভুক্ত একটি দেশ সম্পর্কে জানাবো। ইউরোপের সেনজেন ভুক্ত দেশ আছে 26 টি। যার মধ্যে ডেনমার্ক অন্যতম। আজ আমরা ডেনমার্ক ভিসা প্রসেস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব।


 ডেনমার্ক যেতে কত টাকা লাগে , ডেনমার্ক যেতে কি করতে হয় ডেনমার্কে কাজের বেতন কত ডেনমার্কে কোন কাজ গুলোর চাহিদা বেশি ,ডেনমার্কের টাকার মান কেমন, ইত্যাদি বিষয় নিয়ে থাকছে আজকের বিস্তারিত।

ইউরোপের একটি উন্নত রাষ্ট্র হল ডেনমার্ক|পৃথিবীর সুখী দেশগুলোর মধ্যে ডেনমার্ক অন্যতম। ডেনমার্কে অপরাধ খুব কম হয়। এখানকার মানুষ খুবই শান্তিপ্রিয়। আপনি যদি লেখাপড়া অথবা কাজের জন্য ডেনমার্ক দেশ সিলেকশন করে থাকেন তবে আপনি সত্যিই অনেক বুদ্ধিমান মানুষ।
তাহলে আসুন জেনে নেই ডেনমার্ক সম্পর্কিত সকল বিস্তারিত তথ্য,
ডেনমার্ক যেতে কত টাকা লাগে
বাংলাদেশ থেকে ডেনমার্ক যেতে হলে সর্বোচ্চ ৭০ হাজার টাকা লাগবে। তবে যাবার ধরন বসবাসের ধরনের উপর ভিত্তি করে টাকার পরিমাণ কমবেশি হতে পারে, মনে করি আপনি ডেনমার্কে যাওয়ার জন্য কোন দালালের মাধ্যমে যোগাযোগ করছেন সেক্ষেত্রে আপনার থেকে দালাল যদি অতিরিক্ত টাকা নেই সেক্ষেত্রে আপনার খরচ অনেক বেড়ে যাবে। তাই যে কোন দেশ ভ্রমণের আগে অবশ্যই সচেতন হতে হবে।
ডেনমার্কে যাবার নানান রকম উপায় রয়েছে। বাংলাদেশ থেকে যাবার জন্য অতিরিক্ত কোনো উপায় নেই। তবে আপনি যদি ইউরোপীয় অন্যান্য দেশের নাগরিক হয়ে থাকেন তাহলে আপনার জন্য আরও বেশকিছু ধাপ রয়েছে ডেনমার্কে যাবার জন্য। তবে সুখবর যে বাংলাদেশ থেকে ডেনমার্কে যেতে হলে  ভারতে যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই বাংলাদেশ থেকে সরাসরি ডেনমার্ক ফ্লাইট রয়েছে।
ইউরোপের অন্যান্য দেশ থেকে ডেনমার্কের যেতে হলে সর্বোচ্চ ৪০০ থেকে সাড়ে ৬০০ ডলারের মতো খরচ হবে। তবে আপনি কোন কাজের জন্য যাচ্ছেন লেখাপড়া করার জন্য নাকি ভ্রমণ করার জন্য সেটার উপর নির্ভর করবে আপনার খরচের পরিমাণ।

ডেনমার্কে নাগরিকত্ব

ডেনমার্কে নাগরিকত্ব পাওয়া অনেক কঠিন একটি বিষয়। ইউরোপের অন্যান্য দেশগুলোতে নাগরিকত্ব পাওয়া গেলেও ডেনমার্কে নাগরিকত্ব পাওয়া একেবারেই সম্ভব নয়। পৃথিবীর চেয়ে দেশগুলোতে সবথেকে অপরাধ কম হয় সে দেশগুলোর তালিকায় ডেনমার্কের অবস্থান দ্বিতীয়। এখানে বসবাসকারী মানুষকে প্রচুর পরিমাণে ট্যাক্স প্রদান করতে হয়। এবং ডেনমার্ক শহরটি অত্যন্ত সুন্দর এবং নিরাপদ। তবে ডেনমার্কে নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য সে দেশের সরকার অত্যন্ত কঠোর। ডেনমার্কে নাগরিকত্ব পাওয়া সম্ভব নয়।

মিডিলিস্ট থেকে ডেনমার্ক

যে সকল বাংলাদেশী দুবাই মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর কাতার সুইজারল্যান্ড থেকে ডেনমার্কে যেতে চান তাদের জন্য বিশেষভাবে একটি উপায় করা হয় সেটি হল টুরিস্ট ভিসা। টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে ডেনমার্ক যাওয়াটা অনেক সহজ। তবে এক্ষেত্রে আপনাকে কিছু নিয়মের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো আপনার ব্যাংক স্টেটমেন্ট অবশ্যই দেখাতে হবে।

ডেনমার্ক কাজের ভিসা

বাংলাদেশ থেকে কাজের ব্যাপারটা অনেকটাই কঠিন। কারন বাংলাদেশ থেকে মানুষ অন্য দেশে গিয়ে যে কাগজগুলোর সাধারণত করে থাকে সেরকম কোনো কাজ ডেনমার্কে নেই। ডেনমার্কে কাজ করতে হলে অবশ্যই অনেক দক্ষ হতে হবে। এরপরেও অনেক ধরনের অসাধু চক্র আপনাকে ডেনমার্কে কাজ দেওয়ার জন্য প্রতারণা করে থাকে সেগুলো সম্পর্কে অবশ্যই সচেতন থাকতে হবে। অভিজ্ঞতা এবং সম্পূর্ণ দক্ষতা ছাড়া ডেনমার্কে কাজ পাওয়া যায় না।

তবে কিছু সিস্টেম অবলম্বন করে ডেনমার্কে কিছু কাজ পাওয়া সম্ভব। এখানে স্টুডেন্ট ভিসায় অথবা টুরিস্ট ভিসায় গিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করে কাজ করা যেতে পারে। আসুন জেনে নেই কোন সিস্টেম গুলোর মাধ্যমে কিভাবে ডেনমার্কে কাজের ভিসা পাব।

ডেনমার্কে কাজের ভিসা কিভাবে পাবেন

টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে ডেনমার্কের কাজ পাওয়া যায়, বাংলাদেশ অথবা ভারত থেকে টুরিস্ট ভিসার মাধ্যমে প্রথমে ইউরোপে যেতে হবে। ইউরোপে গিয়ে সেখানকার গভমেন্টের ওয়েবসাইট থেকে অথবা স্থানীয় কিছু আইটি সেক্টরে আপনাকে চাকরি নিতে হবে। অবশ্যই আপনার অভিজ্ঞতা এবং অত্যন্ত গভীর দক্ষতা থাকা প্রয়োজন।
কারণ আপনি যদি মনে করেন অন্য দেশের ডেনমার্কে গিয়েও জায়গা পরিস্কার করবেন অথবা লেবারের কাজ করবেন তাহলে এটা সম্ভব নয়। ডেনমার্ক পৃথিবীর একটি প্রথম পর্যায়ের দেশ। সেখানে সাধারণ কাজ পাওয়া খুবই কঠিন।
স্টুডেন্ট ভিসায় গিয়ে অনেকে কাজ করে। টুরিস্ট ভিসার চেয়ে স্টুডেন্ট ভিসায় কাজ করাটা অনেক সহজ। স্টুডেন্ট ভিসায় প্রথমে ডেনমার্কের যে কোন ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি হতে হবে। ইউনিভার্সিটি তে ভর্তি অবস্থায় আশেপাশের কোন একটি কোম্পানিতে পার্টটাইম কাজ করতে হবে। কিছুদিন কাজ করার পর ওই কোম্পানি থেকে আপনিও ওয়ার্ক পারমিট ভিসা পেয়ে যাবেন। আর এভাবেই আপনি স্টুডেন্ট ভিসা নিয়েও ডেনমার্কে ওয়ার্ক পারমিট ভিসা কাজ করতে পারবেন।

ডেনমার্কে কাজের বেতন কত

ডেনমার্ক যেহেতু একটি উন্নত রাষ্ট্র তাই ডেনমার্কে কাজের বেতন কত সে সম্পর্কে অনেকেরই জানার আগ্রহ প্রবল। তার আগে বলে থাকি ডেনমার্কে কাজ পাওয়াটা কিন্তু অতটা সহজ বিষয় নয় যতটা সহজ আমরা বাঙালিরা ভেবে থাকি। অনেক দক্ষতা অর্জন করা ছাড়া ডেনমার্কের কাজ পাওয়া সম্ভব নয়। ডেনমার্কে কাজের ন্যূনতম বেতন হলো পাঁচ হাজার মার্কিন ডলার। 

তবে কাজের কাঠামোর উপর ভিত্তি করে বেতন কিছুটা কম বেশি হয়। বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন ধরনের ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার এবং সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট এখানে কাজ পেয়ে থাকেন।

ডেনমার্কে কোন কোন কাজের চাহিদা বেশি

এশিয়া বা মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মতো ইউরোপের এই দেশটিতে কাজের চাহিদা নেই। অন্যান্য দেশগুলোতেও যেমন লেবার ,রেস্টুরেন্ট এরকম আরো নানান বিভাগে মানুষ কাজ করে থাকে। তবে ব্যাতিক্রম দেশ হলো ডেনমার্ক। এখানে অধিক দক্ষতা ছাড়া কোন কাজ পাওয়া যাবে না। তবে এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি যে কাজগুলো চাহিদা বেশি সে কাজগুলো কিছু নাম নিচে দেওয়া হল।

  • ডাক্তার
  • ইঞ্জিনিয়ার
  • সফটওয়্যার
  • গেম ডেভেলপমেন্ট
  • নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং
  • শিক্ষকতা
  • আইটি বিভাগ
  • প্রাইভেট কোম্পানি

ডেনমার্ক যেতে কোন কোন ডকুমেন্টস প্রয়োজন

ডেনমার্ক একটি সেনজেনভুক্ত এবং পৃথিবীর অন্যতম নিয়মতান্ত্রিক একটি রাষ্ট্র। এখানে যেতে হলে বেশ কিছু ডকুমেন্টস প্রয়োজন। স্বাভাবিকভাবে অন্য দেশগুলোতে যেগুলো প্রয়োজন সেগুলো পাশাপাশি আরও কিছু নতুন ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হয় এই দেশটিতে যেতে হলে। আসুন জেনে নেই কোন প্রয়োজন সব থেকে বেশি।

  • একটি বৈধ পাসপোর্ট। পাসপোর্টের মেয়াদ কমপক্ষে এক বছর থাকতে হবে।
  • পাসপোর্টে অবশ্যই দুই টির অধিক ফাঁকা পৃষ্ঠা থাকতে হবে।
  • স্টুডেন্ট ভিসা অথবা টুরিস্ট ভিসা দেখাতে হবে।
  • একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট দেখাতে হবে।
  • কমপক্ষে ১০ কপি রঙিন ছবি প্রয়োজন হবে।
  • সকল শিক্ষা সনদের প্রয়োজন হবে।
  • অবশ্যই ইংরেজিতে কথা বলার ন্যূনতম অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • আইইএলটিএস স্কোর কমপক্ষে ৬.৫ হতে হবে।
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট থাকতে হবে।
  • কোভিদ টিকা সনদ সার্টিফিকেট থাকতে হবে।

উপরোক্ত থাকলেই একজন নাগরিক ডেনমার্ক যেতে পারবেন। তবে সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে নিয়মিত কিছু পরিবর্তন হতে পারে। প্রয়োজন হতে পারে নতুন কোন ডকুমেন্টস। আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে সবসময় আপডেট থাকুন সে বিষয়ে।

উপসংহার: যে কোন দেশের অধিবাসী করার জন্য অবশ্যই সর্বেশ্বর সচেতন হওয়া জরুরী। কারো অন্ধ বিশ্বাস করে কোন কাজ করা ঠিক না। অনেক প্রতারকচক্র ফাঁদ পেতে বসে থাকে। সবাই সচেতন হলে তবেই এসকল প্রতারক চক্র কে দূর করা সম্ভব।

মূলত এই সেক্টর গুলোতেই ডেনমার্কে কাজের চাহিদা সবথেকে বেশি। এগুলো ছাড়াও কিছু কাজ আছে যেগুলো আপনি স্থানীয় কিছু কোম্পানিতে করতে পারবেন| তবে তার সংখ্যা খুবই সীমিত।

Leave a Comment