বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূপ্রকৃতির প্রভাব ( জা . বি. ২০১৫ ,২০১৯ )

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূপ্রকৃতির প্রভাব

বাংলাদেশের অর্থনীতি মূলত কোন প্রভাব গুলোর সাথে ওতপ্রুতভাবে জড়িত তা আমাদের জানা জরুরী। মানুষ তার জীবন জীবিকা প্রকৃতিকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত করে। আমাদের ভূপ্রকৃতি সত্যিই বৈচিত্র্যময়। যে কোন দেশের প্রকৃতি সে দেশের অর্থনীতির ওপর নানা রকম ভাবে প্রভাব ফেলতে পারে। বাংলাদেশের ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম হয়নি, আমাদের দেশের পাহাড় পর্বত নদ নদী সমতল ভূমি অর্থনীতিতে বিরাট এক অবদান রেখেছে।

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূপ্রকৃতির প্রভাব

আমাদের দেশের অর্থনীতিতে ভূপ্রকৃতি কিভাবে কাজ করে এবং ভূপ্রকৃতি অর্থনীতিকে কতটা শক্তিশালী করে সে সম্পর্কে নিজে সুন্দরভাবে আলোচনা করা হলোঃ-

মানুষের জীবনযাত্রার উপর প্রভাব

বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার সঙ্গে ভূ-প্রকৃতির এক গভীর মিল রয়েছে। এদেশের মানুষের সার্বিক জীবনধারার উপর এই প্রকৃতি প্রভাব বিস্তার করছে। কেবলমাত্র ভূ প্রকৃতির প্রভাবের কারণেই পার্বত্য অঞ্চলের মানুষগুলো দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করছে। অপরদিকে এই ভূপ্রকৃতির প্রভাবেই সমতল ভূমির মানুষেরা অনেকটাই স্বাভাবিক জীবন যাপন করছে। এবং এসব অঞ্চল বসবাসের উপযোগী হওয়ার কারণে জনবসতি অনেক ঘন হয়।

জীবিকা নির্বাহের উপর প্রভাব

কেবলমাত্র ভূ প্রকৃতির প্রভাবের কারণেই পাহাড়ি অঞ্চলের মানুষগুলোর জীবিকা অনেকটাই বিপরীতমুখী হয়ে পড়েছে। সমতল ভূমিগুলোতে খুব সহজেই ভালো ফসল ফলানো যায় এবং জীবন ধারণ অনেক সহজ বলে সমতলভাবে মানুষেরা অনেকটাই অলস হয়, ফসল ফলনা বেশ কঠিন হয় তাদের অনেক কষ্ট করে জীবিকা নির্বাহ করতে হয় যার কারণে এরা সমতল ভূমিহীন মানুষের চেয়ে অনেক বেশি পরিশ্রমী।

অর্থনৈতিক কার্যাবলীর উপর প্রভাব

এ দেশের অর্থনীতিকে ভিন্নভাবে প্রবাহিত ও নিয়ন্ত্রিত করছে বাংলাদেশের ভূ-প্রকৃতি। গ্রীষ্ম এবং বর্ষাকালে বঙ্গোপসাগর থেকে যে মৌসুমী বায়ু আসে তা পাহাড়ে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ঘটায়, উক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে বাংলাদেশের কৃষি খাতে অনেক উন্নতি ঘটে। একই কারণে শীতকালে ব্যাপক পরিমাণ ফসল জন্মায়। এছাড়াও যে অঞ্চল গুলোতে অধিক পরিমাণে বৃষ্টি হয় সেখানে বর্ণভূমি তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

উক্ত বনভূমি থেকে প্রচুর পরিমাণে কাঠ ও বনজ সম্পদ সংগ্রহ করা যায় এছাড়াও পাহাড়ের ঢালে নানা ধরনের চা রাবার আনারস ইত্যাদি চাষ করা হয়। দক্ষিণ-পশ্চিমে থাকা সমভূমির  লবণাক্ততার কারণে বিরাট এক ম্যানগ্রোভ বনভূমির সৃষ্টি হয়েছে। যা আমাদের দেশকে প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও দেশের মোট উৎপাদিত কাঠের প্রায় ৬০ শতাংশ আসে এ বনভূমি থেকে। সামুদ্রিক বন্দর করে উঠেছে যা বাংলাদেশে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কৃষি শিল্প ব্যবসা-বাণিজ্য করতে সহায়ক ভূমিকা রাখে।

নগরায়ন ও শিল্পায়নের অপর প্রভাব

শিল্পায়ন শিল্প কারখানা এবং নগরায়নের স্থান নির্বাচন করার জন্য ভূপ্রকৃতি গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দেশের শহরগুলো সাধারণত কোন একটি নদীর তীরে অবস্থিত। যার কারণে নারায়ণগঞ্জ খুলনা চট্টগ্রাম বাগেরহাট শিল্পনগর হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে সিলেট অঞ্চলের ছোট পাহাড় গুলো এবং প্রচুর বৃষ্টিপাতের জন্য চা চাষের উপযোগী হয়ে উঠেছে। আবার রাজশাহীতে রেশম উৎপাদনের মাধ্যমে গুটি পোকা চাষের জন্য গুরুত্ব লাভ করেছে।

ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে প্রভাব

দেশের ভূপ্রকৃতি ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে নানা ভাবে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। ভূ প্রকৃতিগুলো ব্যবসা-বাণিজ্যের অনুকূলে রয়েছেভ নদী পথে দেশ বিদেশ থেকে ব্যবসায়িক সামগ্রী লেনদেন এছাড়া সমতল ভূমির জন্য সহজে যাতায়াত ব্যবস্থা তৈরি শিল্পক্ষেত্রে কাঁচামালের লেনদেনসহ নানা ক্ষেত্রে অর্থনীতিতে ভূ-প্রকৃতির  অবদান রয়েছে।

উৎপাদন ক্ষেত্রে প্রভাব

এদেশে ভূপ্রকৃতি উৎপাদন ক্ষেত্রেও ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। সমতল ভূমির কারণে কিসে দ্রব্য উৎপাদন বেশি হয় এবং কৃষি দ্রব্যের এক বিরাট অংশ কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত করা যায়। যার কারণে এদেশের শিল্পকর্মের উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও আমাদের দেশের ভূপ্রকৃতি বসবাসের উপযোগী বিধায় শ্রমিকের উৎপাদন ক্ষেত্রেও ব্যাপক অবদান রাখে স্বল্পমজুরিতে এ দেশে শ্রমিক পাওয়া যায় যার কারণে উৎপাদন করতে আরো সুবিধা হয়।

শ্রমের গতিশীলতার ক্ষেত্রে  প্রভাব

শ্রমের গতিশীলতা বলতে আমরা একটি শ্রমিকের এক ধরনের পেশা থেকে অন্য ধরনের পেশাই গমন কে বুঝি। আমাদের দেশের ভূপ্রকৃতি অত্যন্ত বৈচিত্র্যময় হওয়ার কারণে এদেশের শ্রমিকরা খুব সহজে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে অভিগমন করে অর্থ উপার্জন করতে পারে। যার ফলে শ্রমিকরা বছরের সব সময় কাজে ব্যস্ত হয় এবং খুব সহজে তাদের জীবিকা নির্বাহ করতে পারে যা দেশের অর্থনীতিকে অনেকটাই উন্নতি করে।

বৈদেশিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি

বাংলাদেশের ও প্রকৃতি বসবাস এবং ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য উপযোগী হওয়ার কারণে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা নানা ধরনের খাতে বিনিয়োগ করে থাকে। এতে করে দেশের প্রবাহ সৃষ্টি হতে থাকে এবং দেশের অর্থনীতি আরও উন্নত হয়।

জাতীয় আয় বৃদ্ধি

আমাদের দেশের ভূ-প্রকৃতি কৃষি শিল্প ও ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে উপযোগী হওয়ার কারণে দেশের অর্থনীতি অনেক বেশি উন্নত হয়। দেশের অর্থনীতি উন্নত হলে দেশের জাতীয় আয় বৃদ্ধিতে সরাসরি ভূমিকা রাখে।

উপসংহার

উপরোক্ত আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বলতে পারি যে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে ভূপ্রকৃতি ব্যাপকভাবে প্রভাব বিস্তার করছে, শুধুমাত্র ভূ প্রকৃতির উপর ভিত্তি করে মানুষের অর্থনৈতিক জীবন যাপন করে উঠছে নিচের বিভিন্ন দেশ অর্থনৈতিক উন্নয়নের কৃত্রিম পরিবেশ সৃষ্টি করলেও আমাদের দেশ উপকৃতির উপর বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পেয়ে থাকে।

Leave a Comment