সার্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন

সার্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন
আসসালামু আলাইকুম, সর্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন এই সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে আজকের আর্টিকেলে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। বর্তমান সময়ে এই সংক্রান্ত তথ্যগুলো জানতে আপনারা যারা আগ্রহী আজকের আর্টিকেল আপনাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে।
পুরো কনটেন্ট যদি আপনি মনোযোগ সহকারে পড়েন তাহলে সকল বিষয়ে আপনারা এখান থেকে জানতে পারবেন। তো চলুন সর্বজনীন পেনশন আইন এবং যেভাবে আবেদন করবেন অথবা রেজিস্ট্রেশন করবেন সেই সকল বিষয়গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা কি

আমরা সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা সম্পর্কে অনেকেই জানি আবার অনেকেই জানিনা। সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা হলো এমন একটি ব্যবস্থা যা সমস্ত নাগরিকের জন্য উন্মুক্ত। সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা সামাজিক সুরক্ষা ব্যবস্থা যা অবসরপ্রাপ্তদের আর্থিক নিরাপত্তা প্রদান করে থাকে। সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থায় কর্মজীবীদের তাদের আয় থেকে একটি অংশ পেনশন তহবিলে জমা রাখা হয়। পরবর্তীতে অবসরপ্রাপ্তদের জন্য পেনশন প্রদান করে থাকে।

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার প্রবর্তন কখন থেকে করা হয়েছে

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা প্রবর্তন করা হয়েছে ২২ শে ফেব্রুয়ারি ২০২৩ সালের। এখানে সর্বস্তরের জনগণকে পেনশন কাঠামোর অন্তর্ভুক্ত লক্ষ্যেই এটা প্রবর্তন করা হয়। জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ২০২৩

সনের ৪ নং আইনে এটা উল্লেখ করেন। ১৭ই আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বহুল প্রতীক্ষিত এ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। এখান থেকে সার্বজনীন পেনশন কর্মসূচিতে উন্মুক্ত হয়েছে সবার জন্যই।

সার্বজনীন পেনশন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য

ইতিমধ্যে বুঝতে পেরেছি যে বৃহস্পতিবার ১৭ই আগস্ট সার্বজনীন পেনশন কর্মসূচি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেন। সুতরাং বৃহস্পতিবার থেকেই অর্থাৎ ১৭ই আগস্ট ২০২৩ থেকে সকল বাংলাদেশীদের জন্য সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি উন্মুক্ত হয়েছে।
আজকের এই আলোচনা থেকে আমরা আরো জানতে পারি যে, পেনশন কর্মসূচি বা ইস্কিমে অন্তর্ভুক্ত হলে ৬০ বছর বয়সের পর থেকে যে কেউ আজীবন পেনশন সুবিধা পাবেন একজন চাঁদা দাতা। তিনি যদি কোন কারণে মারা যান তার নমিনি বা উত্তরাধিকারী পেনশন পাবেন।

পেনশন স্কিম কয়টি

আপাতত পেনশন স্কিম চার ধরনের চালু করা হয়েছে। যে চার ধরনের পেনশন স্কিম চালু করা হয়েছে তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো।
  • প্রবাসীদের জন্য প্রবাসী স্কিম।
  • বেসরকারি চাকরিজীবীদের জন্য প্রগতি স্কিম।
  • আনুষ্ঠানিক খাত অর্থাৎ সকর্মে নিয়োজিত এমন নাগরিকের জন্য সুরক্ষা স্কিম।
  • আর নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য থাকছে সমতা স্কিম।
আপাতত এই চারটি স্কিম চালু করা হয়েছে। তবে পরবর্তী সময়ে আরো বেশি স্কিম চালু হতে পারে।

কিসের মাধ্যমে পেনশন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত হওয়া যাবে

আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে রেজিস্ট্রেশন কমপ্লিট করে পেনশন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন। সার্বজনীন পেনশনের কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য ইতিমধ্যে সার্বজনীন পেনশন স্কিম বিধিমালা গঠন করা হয়েছে সার্বজনীন পেনশন কর্তৃপক্ষ থেকে। পাশাপাশি বৃহস্পতিবারে ইউপেনশন নামক ওয়েবসাইট ও উদ্বোধন করা হয়েছে। আপনারা এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজেই পেনশন কর্মসূচিতে অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন। বিস্তারিত নিম্নে উল্লেখ করা হলো।

সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে মাসে কত টাকা পাওয়া যাবে

সার্বজনীন পেনশনে সকল প্রকারের মানুষ যোগদান করতে পারবে। তাই অবশ্যই আপনাদের উচিত সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে কেমন টাকা মাসে পাওয়া যাবে সে সম্পর্কে জানা। এখানে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ যোগদান করবেন। এ বিষয়ে সোমবারে সার্বজনীন পেনশন স্কিম বিধিমালা ২০২৩ অনুযায়ী জারি করেছে অর্থ উন্নয়নের অর্থ বিভাগ। যেহেতু চার ধরনের স্কিম চালু হয়েছে সুতরাং চারটিতে চার রকম রয়েছে। নিচে আলাদাভাবে চার ধরনের স্কিম সম্পর্কে উল্লেখ করা হলো।

প্রবাস / প্রবাসী বাংলাদেশী

সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে মাসে কত টাকা পাওয়া যাবে

প্রগতি স্কিম / বেসরকারি চাকরিজীবী

সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে মাসে কত টাকা পাওয়া যাবে

সুরক্ষা / স্বকর্ম ও অ-প্রাতিষ্ঠানিক কর্মী

সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে মাসে কত টাকা পাওয়া যাবে

সমতা / স্বল্প আয়ের ব্যক্তি

সার্বজনীন পেনশনে কত টাকার কিস্তিতে মাসে কত টাকা পাওয়া যাবে

যেভাবে সার্বজনীন পেনশনের জন্য নিবন্ধন করবেন

সার্বজনীন পেনশনের জন্য কিভাবে আবেদন করবেন আপনারা অনেকেই জানেন না। অনলাইনের মাধ্যমে আপনারা সার্বজনীন পেনশনের জন্য খুব সহজে আবেদন করতে পারেন। অনেকেই এই আবেদনকে নিবন্ধন, অথবা রেজিস্ট্রেশন অথবা অন্যান্য ভাবে বুঝে থাকবেন। তবে সকল বিষয় একই। আপনারা কিভাবে সার্বজনীন পেনশনের জন্য আবেদন করবেন তার নিম্নে উল্লেখ করা হলো।

সার্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন

সার্বজনীন পেনশন রেজিস্ট্রেশন করবেন যেভাবে

আপনার অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজেই সার্বজনীন পেনশনের জন্য আবেদন করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাদের সঠিক তথ্য প্রদান করতে হবে। যদি আপনারা ভুল তথ্য প্রদান করেন তবে আপনারা নিবন্ধন এর জন্য গ্রহণযোগ্য হবেন না। সার্বজনীন পেনশনের জন্য নিবন্ধন করতে হলে সর্বপ্রথম আপনাকে ইউপেনশন ওয়েবসাইটটিতে যেতে হবে। অতঃপর কিভাবে আপনারা পেনশনের জন্য নিবন্ধন করবেন তারা উল্লেখ করা হলো।
  • ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পরে আপনারা একটি প্রত্যয়ন পাতা দেখতে পাবেন। যেখানে লেখা থাকবে আমি এই মর্মে প্রত্যয়ন করছি যে আমি সরকারি আধা সরকারি স্বায়ত্তশাসিত রাষ্ট্রয়ত্ত্ব কোনো প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নেই। অথবা আমি সার্বজনীন পেনশন স্কিম বহির্ভূত কোন ধরনের সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে সুবিধা গ্রহণ করি না অথবা সুবিধা ভোগ করি না। আমি সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় কোন ধরনের ভাতা নেই না। অতঃপর আপনারা আমি সম্মত আছি অপশনে ক্লিক করবেন। নিম্নে ছবির মাধ্যমে দেখানো হলো।
সার্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন

  • সেখানে ক্লিক করার পরে আপনাকে আরেকটি পাতায় নিয়ে যাওয়া হবে। অতঃপর সেখানে আপনারা নিবন্ধন করার জন্য সকল প্রক্রিয়া দেখতে পারবেন। সেখানে আপনারা যা যা চাইবে সেগুলো সঠিকভাবে দেবেন। যেমন, এনআইডি নাম্বার, জন্মতারিখ, মোবাইল নাম্বার, ইমেইল আইডি।
  • এগুলো সঠিকভাবে দেওয়ার পরে আপনারা ক্যাপচার কোন সঠিকভাবে লিখে সাবমিট অথবা পরবর্তী পেজে ক্লিক করবেন। নিম্নে ছবির মাধ্যমে দেখানো হলো।
সার্বজনীন পেনশনের জন্য যেভাবে আবেদন করবেন

  • ক্যাপচার কোড দিয়ে পরবর্তী পেজে ক্লিক করলে। আপনার ফোন নাম্বারে একটি ওটিপি কোড যাবে। অতঃপর আপনারা ওটিপি কোডটি সঠিকভাবে বসে পরবর্তী ধাপে ক্লিক করবেন।
  • অতঃপর আপনাদের আরেকটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে আপনাদের তথ্য দিতে হবে অবশ্যই এনআইডি কার্ড দেখে সঠিকভাবে বসাবেন সকল তথ্য।
  • তারপরে আপনাদের বার্ষিক আয়, পেশা অর্থাৎ কি কাজ করেন, বিভাগ, জেলা ইত্যাদি যা যা চাই সবগুলো সঠিকভাবে পূরণ করবেন। অতঃপর সবকিছু সম্পূর্ণভাবে পূরণ করা হলে আপনারা স্কিন তথ্য এই পাতায় যাবেন।
  • অতঃপর আপনারা যখন স্কিম তথ্যের পাতায় যাবেন তখন আপনাদের কাছে চাঁদার পরিমাণ ও চাঁদা পরিশোধের ধরন বাছাই করার অপশন আসবে। অথবা আপনারা সেখানে ক্লিক করে ব্যাংক তথ্যের ধাপ এ ক্লিক করবেন।
  • অতঃপর আবেদনকারীর ব্যাংক হিসাবের নাম, নম্বর, রাউটিং নাম্বার, ব্যাংকের নাম, ব্যাংকে শাখা ইত্যাদি লিখতে হবে। অতঃপর আপনারা নমিনি তথ্যের পাতায় ক্লিক করবেন।
  • নমিনি তথ্যের পাতায় ক্লিক করার পরে আপনি যাকে নমিনি করতে যাচ্ছেন তার সকল তথ্য সঠিকভাবে দেবেন। এখানে আপনি একাধিক নমিনি যুক্ত করতে পারবেন। যে সকল তথ্যগুলো চাই সে সকল তথ্যগুলো সঠিকভাবে দেয়ার পরে আপনারা সম্পূর্ণ ফর্ম ধাপে ক্লিক করবেন।
  • সম্পূর্ণ ফর্ম শেষ হলে এটাই নিবন্ধনের শেষ ধাপ। এখানে আপনারা এতক্ষণ সময় ধরে যে সকল তথ্যগুলো দিয়েছেন অথবা যে সকল তথ্যগুলো লিখেছেন সবগুলো একসঙ্গে দেখতে পারবেন। সবকিছু একবার সঠিকভাবে দেখে নেবেন। কোন কিছু ভুল থাকলে অবশ্যই সংশোধন করে নেবেন। আর সব যদি সঠিক থাকে তবে আপনারা সম্মতিতে ক্লিক করে অথবা সাবমিট এ ক্লিক করে দেবেন। তারপরে আপনারা আবেদন পত্রটি ডাউনলোড করে ও নিতে পারবেন।

সার্বজনীন পেনশনের জন্য আবেদনের লিংক

সার্বজনীন পেনশনের জন্য অনেকেই অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করবেন। অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে হলে আপনাকে জানতে হবে কোথায় গিয়ে আবেদন করতে হবে। অথবা তাদের ওয়েবসাইটের নাম অথবা লিংক। আমরা ইতিমধ্যে উপরে উল্লেখ করেছি কিভাবে আপনারা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবেন। নিচে আবেদন করার জন্য যে লিংকে প্রবেশ করবেন সেই লিংক দেওয়া হলো। আপনারা এই লিংকে ক্লিক করে সরাসরি ওই পেজে গিয়ে আপনারা আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারবেন।
সার্বজনীন পেনশনের জন্য আবেদনের লিংকঃ- https://www.upension.gov.bd/Public/Registration

সার্বজনীন পেনশনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথা

অবশ্যই সার্বজনীন পেনশনের জন্য সকলে সঠিক তথ্য প্রদান করবেন। তাছাড়া আপনারা পেনশন পাবেন না। অতঃপর আপনারা সঠিকভাবে সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবেন। কেননা আপনি যদি ভুল করেন তবে আবার প্রথম থেকে আপনাকে সবকিছু পূরণ করতে হবে।
অর্থাৎ আপনি প্রথম পেজ এবং দ্বিতীয় পেজ সঠিকভাবে পূরণ করেছেন কিন্তু তৃতীয় পেজ সঠিকভাবে পূরণ না করে চতুর্থ পেজে চলে গেছেন তখন পুনরায় আপনাকে আবার প্রথম থেকে শুরু করতে হবে। কারণ এখানে ব্যাকে যাওয়ার কোন সিস্টেম নেই। সুতরাং প্রথম থেকে সঠিকভাবে পূরণ করবেন।

অনলাইনে সার্বজনীন পেনশনের জন্য আবেদন করার নিয়ম

অনলাইনের মাধ্যমে আমরা সবকিছুই খুব সহজেই করতে পারি। আপনারা সার্বজনীন পেনশন এর জন্য অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসে নিজে নিজেই আবেদন করতে পারবেন। ইতিমধ্যে আমরা উল্লেখ করেছি আপনারা কিভাবে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবেন। তবুও আপনাদের যদি কোন রকম সমস্যা থেকে থাকে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করবেন। ইনশাআল্লাহ আপনাদের প্রশ্নের উত্তর খুব দ্রুত সময়ে দেওয়ার চেষ্টা করব।

সার্বজনীন পেনশন পেতে যেভাবে আবেদন করবেন

সার্বজনীন পেনশন পেতে হলে অনলাইন এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। আর অবশ্যই সঠিক তথ্য দিয়ে আবেদন করতে হবে। আপনি যদি অবৈধ তথ্য দিয়ে আবেদন করেন তবে সার্বজনীন পেনশন আপনি পাবেন না। সুতরাং সার্বজনীন পেনশন পেতে হলে আপনাকে সঠিকভাবে সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে। তবে আপনি সার্বজনীন পেনশন পাবেন।

FAQ

সার্বজনীন পেনশন উদ্বোধন কবে করা হয়

উত্তরঃ– ১৭ই আগস্ট ২০২৩ শেখ হাসিনা সার্বজনীন পেনশন উদ্বোধন করেন।

জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইট এর নাম কি

উত্তরঃ– জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটের নাম ইউপেনশন
আরো জানতে ভিজিট করুন

Leave a Comment