স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার ৫ টি ক্রিম (জানুন বিস্তারিত)

স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার ৫ টি ক্রিম (জানুন বিস্তারিত)


স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার ৫ টি ক্রিম

আমরা সকলেই নিজের সৌন্দর্যতাকে ধরে রাখতে চাই। যে কারণে যুগে যুগে এবং বর্তমান সময়ে বিভিন্ন রকম কেমিক্যাল সহ অন্যান্য জিনিস মানুষ ব্যবহার করে আসছে। বর্তমান সময়ে আমরা অনেকেই রয়েছে যারা এভাবে ফর্সা হতে চাই এবং আকর্ষণীয় দেখায় এমন হতে চাই। যে কারণে আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকম ক্রিম ব্যবহার করে থাকি।

আজকের আমাদের এই আর্টিকেলে স্থায়ীভাবে ফর্সা হওয়ার পাঁচটি ক্রিম বা ফর্সা হওয়ার কার্যকরী পাঁচটি ক্রিম নিয়ে আলোচনা করব। এখান থেকে আপনারা এই ক্রিমগুলোর দাম, কার্যকারিতা, ব্যবহার বিধি ইত্যাদি বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়ে যাবেন। চলুন গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

পন্ডস
হোয়াইট বিউটি ডে ক্রিম

মূল্য:
৩৫ গ্রাম পন্ডস হোয়াইট বিউটি ডে ক্রিম এর মূল্য ১৪০ টাকা।


কার্যকারিতা:
এই ক্রিম ব্যবহারে আপনার ত্বক হবে মসৃণ ও স্বাস্থ্যজ্জল। এটি
ব্যবহারে আপনার মুখের ছোট ছোট কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করে। ক্রিমটিতে রয়েছে ত্বকের জন্য উপকারী উপাদান, যা ত্বকের গভীরে
গিয়ে ত্বককে করে মশারাইজার এবং স্বাস্থ্যজ্জ্বল। এটি দাগ দূর করে ত্বকে দেয় ন্যাচারাল গ্লো। এটি নিয়মিত ব্যবহারের জন্য খুব ভালো একটি ক্রিম।

ব্যবহারবিধি: ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ভালোভাবে ধুয়ে নিন, তারপর ক্রিমটি মুখে ও ঘাড়ে হালকা
ভাবে অ্যাপ্লাই করুন। ভালো ফলাফল পেতে ক্রিমটি দিনে দুইবার ব্যবহার করুন।

সতর্কতা:
ক্রিমটি ব্যবহারে ত্বকে কোনরকম অস্বস্তি বোধ করলে ক্রিমটি দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

গ্লো অন পিং গ্লো ক্রিম / Glow on pink glow cream

মূল্য:
২৫ গ্রাম গ্লো অন পিং গ্লো ক্রিম এর মূল্য ৭৫ টাকা।


কার্যকারিতা:
এই ক্রিমে রয়েছে ভিটামিন সি যা ত্বকের
পুষ্টি যোগায় এবং ত্বককে করে আরো বেশি মসৃণ ও কোমল। এটি
ব্যবহারে মুখের কালো দাগ সম্পূর্ণরূপে দূর হয়। এই ক্রিমটি নিয়মিত
ব্যবহারে মুখের কুঁচকানো ভাব দূর হয়, বয়সের ছাপ দূর হয়। এটি ব্যবহারে চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল সম্পূর্ণভাবে দূর হয়।

ব্যবহারবিধি: ক্রিমটি মুখে এপ্লাই করার আগে অবশ্যই আপনাকে ভালো মানের ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে অতঃপর ক্রিমটি মুখে হালকা ভাবে এপ্লাই করতে হবে।

*ভালো ফলাফল পেতে আপনাকে অবশ্যই ক্রিম টি দিনে দুইবার
ব্যবহার করতে হবে এবং রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে মুখে লাগিয়ে ঘুমাতে হবে।

হিমালয়া
ন্যাচারাল গ্লো স্যাফরণ ফেস ক্রিম

কার্যকারিতাঃ- এটি
একটি ফাইটো ভিটামিন কমপ্লেক্স সমৃদ্ধ ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর উন্নত ফর্মূলা,যাতে আছে আলফালফা,জাফরান এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় ভিটামিনের সংমিশ্রণ। আলফালফা এবং জাফরান ত্বককে মসৃণ করতে এবং নিস্তেজ ভাব দূর করে ত্বককে দীপ্তিময় করে তুলতে সহায়তা করে। এই উপাদান গুলো
প্রাকৃতিকভাবে আপনার ত্বকে পুষ্টি যোগিয়ে আরো উজ্জ্বল এবং মসৃণ করে।


নির্দেশনা:
দিনে দুইবার করে পরিষ্কার মুখে এবং গলায় পরিমাণমতো প্রয়োগ করতে হবে।

মূল্য:
এই ক্রিমটির মূল্য মাত্র ১২৫ টাকা ৫০ গ্রাম এর ক্ষেত্রে।


টি দৃশ্যমান সুফল:
১: ত্বককে করে
উজ্জ্বল এবং মসৃন।
২:
মুখের কালো দাগ তুলতে সহায়তা করে।
৩:
স্বাস্থ্যজ্জ্বল ত্বকের জন্য পুষ্টি যোগায়।
৪:
চোখের নিচের ডার্ক সার্কেল দূর করতে সহায়তা করে।
৫:
ত্বক রাখে আদ্র কোন চিটচিটে ভাব ছাড়াই।
দৃশ্যমান ফলাফল পেতে ছয় সপ্তাহ ব্যবহার করুন।
বিশেষ দ্রষ্টব্য: শুধুমাত্র বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য।
 

ফেয়ার
এন্ড লাভলী অ্যাডভান্স মাল্টিভিটামিন ক্রিম

কার্যকারিতা:
এই ক্রিমটি নিয়মিত ব্যবহারে, মুখের উজ্জ্বলতা বাড়াবে, মুখের বলিরেখা ভাব দূর করবে, ত্বক কে করবে মসৃণ
ও উজ্জ্বল। শুষ্ক ত্বকে সজীবতা আনবে।


উপকারিতা: এই ক্রিমটি আপনি
দিনে বা রাতেআপনার সুবিধামতো
ব্যবহার করতে পারবেন। এই ক্রিমটি ইউজ
করার পর আপনার মুখে
তেলতেলে ভাব অথবা চিটচিটে ভাব থাকবে না। ক্ষতিকর কোন উপাদান নেই ও কোন প্রকার
কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। এই ক্রিমটি আপনার
মুখে কোন রকম কোনো ক্ষতি ছাড়াই মসৃণ ও স্বাস্থ্যজ্জ্বল করে তোলে।

ব্যবহারবিধি: ভালোফলাফল পেতে এই ক্রিমটি দিনে
দুইবার ও রাতে ঘুমানোর
আগে পরিষ্কার মুখে ব্যবহার করুন।
বিশেষ
দ্রষ্টব্য:
শুধুমাত্র বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য।

গার্নিয়ার লাইট কমপ্লিট ফেয়ারনেস সেরাম ক্রিম

গার্নিয়ার
লাইট কমপ্লিট ফেয়ারনেস সেরাম ক্রিম

মূল্য:
৪৫ গ্রাম ১৭০ টাকা মাত্র।


কার্যকারিতা:
এই ক্রিমে রয়েছে ভিটামিন সি যেটি আমাদের
ত্বকের সব ধরনের কালো
দাগ দূর করতে খুব ভালোভাবে কাজ করে। এটি তিন ধরনের স্পর্ট রিমুভ করতে সাহায্য করে:
১.
ব্রণের কালো দাগ।
২.
ডার্ক সার্কেল।
৩.
রোদে পোড়া কালো দাগ।

উপকারিতা:
এটি নিয়মিত ব্যবহারে আপনি সাত দিনের ভিতরে আপনার ত্বকে তফাৎ অনুভব করতে পারবেন। এটি ব্যবহারে আপনার মুখের সমস্ত কালো দাগ সাত দিনের ভিতরে অনেকটা কমে যাবে এবং আপনাকে আগের চেয়ে দ্বিগুণ বেশি ফর্সা দেখাবে।

এটি ব্যবহারে আপনার মুখের বয়সে ছাপ দূর হবে। চোখের নিচে নিচের কালো দাগ উঠে যাবে। মুখের ভিতরে ব্রণের দাগ ও ছোট ছোট
কালো দাগ থাকলে সেটা রিমুভ হবে। আপনিএটি ব্যবহারে সাত দিনের ভিতরে ভালো ফলাফল পাবেন।

ব্যবহার
বিধি:
এই ক্রিমটি ব্যবহার
করার আগে অবশ্যই আপনার মুখটি ভালো মানের কোন ফেসওয়াশ দিয়ে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। তারপর এই ক্রিমটি মুখে
ও ভালোভাবে ব্যবহার করতে হবে।

এই ক্রিমটি ব্যবহারের
সময় অবশ্যই মাথায় রাখবেন যে, এটি রাতে ঘুমানোর আগে ব্যবহার করা যাবে না। আপনি চাইলে রাতে ঘুমানোর আগে গার্নিয়ার নাইট ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। আশা করি, এতে আরো ভালো ফলাফল পাবেন।

সতর্কতা:
এই ক্রিমটি ব্যবহারের পর আপনার মুখে
যদি কোন অস্বস্তি বোধ করেন, অবশ্যই সাথে সাথে ক্রিমটি ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন।
বিশেষ
দ্রষ্টব্য:
এই ক্রিমটি শুধু
বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য প্রযোজ্য।

শেষ কথা

আজকের আমাদের এই আর্টিকেলে ফর্সা হওয়ার পাঁচটি ক্রিম নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। অনেকেই google সার্চ দিয়ে জানতে চান ফর্সা হওয়ার ক্রিম সম্পর্কে। যে কারণে আজকের আমাদের এই আর্টিকেল তৈরি করা। আপনারা অনেকেই উপকৃত হবেন আজকের আমাদের এই আর্টিকেল থেকে। আরো অন্যান্য তথ্য সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে পারেন। আপনার মূল্যবান প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ।

আরো জানতে ভিজিট করুন

Leave a Comment